ফেসবুক নয়, কোয়ারাতে অ্যাক্টিভ হলেই অনলাইনে যে কোন পরিমান ইনকাম করার সুযোগ!!

0
239

আচ্ছা আপনি কি আপনার ইন্টারন্যেশনাল বিজনেস এর প্রসার করতে চাচ্ছেন, যে কোন ওয়েবসাইট নিয়ে ব্রান্ডিং করতে চাচ্ছেন , বা আপনার কি টার্গেটেড ভিজিটর লাগতেছে ? তাহলে তার একটি সহজ সমাধান হচ্ছে , আপনাকে “আপনার নিশ রিলেটেড” মানুষের প্রশ্নের উত্তর দেওয়ান।

যারা মার্কেটিং নিয়ে  এক্সপার্ট না বা মার্কেটিং সম্পর্কে জানেন না বা  শিখতে চাচ্ছেন । তাদের জন্য Quora হচ্ছে একটি দুর্দান্ত প্লাটফর্ম । এখানে আপনি আপনার নিশ বা ব্যবসা নিয়ে মানুষের প্রশ্নের উত্তর দিয়ে প্রথমত মানুষকে সাহায্য করতে পারবেন, দ্বিতীয়ত আপনার নিজের বা নিজ ব্যবসার ব্রেন্ডিং করতে পারবেন, তৃতীয়ত আপনার ওয়েবাইট বা ব্লগে মিলিয়ন এর উপরে টার্গেটেড ভিজিটর নিয়ে যেতে পারবেন ।

তাহলে আর দেরি কেন, শিখে নিন কিভাবে আপনি কোরা সাইট এ , আপনার বেস্ট প্রোফাইল তৈরি করবেন এবং কিভাবে আপনি সবচাইতে বেস্ট উত্তর দিয়ে নিজের নিশ ব্রান্ডিং বা মার্কেটিং করবেন ।

এক নজরে বিস্তারিত:

    • 0.1 Quora কেন জনপ্রিয় ?
    • 0.2 Quora প্রোফাইলঃ
    • 0.3 ফিডস, সার্চ, ফলো, আপভোট, ডাউনভোটঃ
    • 0.4 প্রশ্ন এবং উত্তর সাবমিটঃ
  • 1 how to turn million traffic from quora for your website or fiverr gig
    • 1.1 Quora মার্কেটিং এ সতর্কতাঃ

Quora কেন জনপ্রিয় ?

  1. ইউটিউব এ যেমন আমরা কোন কিছু শিখার জন্য যেকোন প্রশ্ন বা যেকোন কিওয়ার্ড  লিখে সার্চ দিয়ে ভিডিও দেখে শিখি, টিক একইরকম ভাবে এখানেও সার্চ দিয়ে কোয়ালিটি সম্পন্ন হাজার হাজার উত্তর পাবেন।
  2. এখানে আপনি যে কোন প্রশ্ন লিখে, সেই কিওয়ার্ড এক্সপার্টদের ইনাবাইট করতে পারবেন উত্তর দেওয়ার জন্য। কারণ, আপনি যখন প্রশ্ন লিখে সাবমিট করবেন, তখন “কোরার রোবট ইঞ্জিন” ঐ কিওয়ার্ড এক্সপার্ট দের আপনার সামনে নিয়ে আসবে উত্তর এর ইনবাইট পাঠানোর জন্য।
  3. কোরাতে প্রতি মাসে ইউনিক ভিজিটর আসে ১০০মিলিয়ন এর উপর, ডাইরেক গুগুল সার্চ থেকে।
  4. পৃথিবীতে এমন কোন কিওয়ার্ড নাই, যার প্রশ্ন কোরা তে পাবেন না এবং সাথে উত্তর পাবেন ১০ থেকে ১০০+ পর্যন্ত।
  5. আপনি উত্তর দেওয়ার সময় আপনার সাইট এর লিঙ্ক দিয়ে এনকর টেক্সট এর মাধ্যমে ব্যেকলিঙ্ক করতে পারবেন । দেখিয়েন আবার স্পমিং করবেন না এবং সরাসরি কোন লিঙ্ক শেয়ার করবেন না কারণ কোরা স্পামিং পছন্দ করে না । প্রশ্নের সাথে যদি কোয়ালিটি উত্তর ও ব্যকলিঙ্ক মিলে তাহলে করতে পারবেন ।
  6. কোরা থেকে আপনি যে কোন বিষয়ের উপর দক্ষতা অর্জন করতে পারবেন ।

এখন যেহেতু আপনি বুজে গেলেন যে, কেন কোরাতে আপনি জয়েন করবেন। চলুন, তাহলে আমরা জেনে নি কিভাবে Quora তে একটি ভালো প্রোফাইল তৈরি করা যায় ?

Quora প্রোফাইলঃ

এই সাইট কিন্তু অন্য সাইট এর মত ইমেইল আইডি দিয়ে সাইনআপ করার অপশন নাই । এখানে আপনাকে আপনার গুগুল প্লাস, ফেইসবুক বা টুইটার একাউন্ট দিয়ে সাইনাপ করে ডুকতে হবে। সাইনাপ হয়ে গেলে আপনার প্রথম কাজ হল, নিজের খুব সুন্দর একটি প্রোফাইল বানানো । কারণ আপনি যখন আপনার নিশ এর ব্রান্ডিং করবেন বা আপনার অভিজ্ঞতার ভিত্তিতে মানুষের উত্তর দিতে থাকবেন, তখন সবাই আপনার প্রোফাইল এ ডুকে আপনার সম্পর্কে তথ্য জানতে চাইবে। এতে আপনি ভাল তথ্য দিয়ে নিজের ব্রেন্ডিং করতে পারবেন ।

আপনার প্রোফাইল সাজানোর জন্য, উপরের মেনু বারে আপনার নামের পাশে ইডিট এ ক্লিক করুন। তারপর আপনার প্রফাইল শিরোনাম এড করুন এবং আপনার প্রোফাইলের ডেসক্রিপশন এড করুন । নিচে দেখে নিন কিভাবে আমি আমার প্রোফাইল সাজিয়েছি ।

ফেসবুক নয়, কোয়ারাতে অ্যাক্টিভ হলেই অনলাইনে যে কোন পরিমান ইনকাম করার সুযোগএছাড়া আপনি সেটিংস এ ডুকে আরো আপনার বিস্তারিত তথ্য দিয়ে প্রোফাইল সাজাতে পারবেন ।

ফিডস, সার্চ, ফলো, আপভোট, ডাউনভোটঃ

নিচের ছবিটি লক্ষ্য করেন ,

ফেসবুক নয়, কোয়ারাতে অ্যাক্টিভ হলেই অনলাইনে যে কোন পরিমান ইনকাম করার সুযোগ

এখানে প্রথমে আপনি ফিডস ইডিট করে, আপনার পছন্দমত কিওয়ার্ড গুলো এড করে নিবেন যাতে আপনি ঐ রিলেটেড প্রশ্নগুলো আপনার নিউস্ফিড এ পান এবং উত্তর দিতে পারেন। এরপর আপনি উপরের সার্চ বারে আপনার নিশ বা প্রিয় কিওয়ার্ডগুলো সার্চ দিয়ে দিয়ে ফলো করতে থাকেন। এবং কোরাতে আপভোট মানে হচ্ছে লাইক এবং ডাউনভোট হচ্ছে ডিসলাইক । যদি আপনার প্রশ্নের উত্তর এ কেউ যদি ডাউনভোট দিয়ে দে, মনে করবেন উত্তর টি কোরাতে রিভিউ চলে গেছে এবং রিস্ক এ চলে গেছে । এতে, কোরা বিবেচনা করে ঐ উত্তর মুছে দিতে পারে যদি উত্তরের কোন ভ্যেলু না থাকে।

প্রশ্ন এবং উত্তর সাবমিটঃ

যদি আপনি কোন প্রশ্ন করতে চান তাহলে জাস্ট উপরের সার্চ বারে লিখে সাবমিট করুন।

ফেসবুক নয়, কোয়ারাতে অ্যাক্টিভ হলেই অনলাইনে যে কোন পরিমান ইনকাম করার সুযোগ
এখন সাবমিট হয়ে গেলে আপনার সামনে একটা ইনভাইট অপশন আসবে, যেখানে দেখতে পাবেন আপনার প্রশ্নের মূল কিওয়ার্ড এর এক্সপার্ট দের । এখন ওখানে যারা সচাইতে বেশি প্রশ্নের উত্তর দিয়েছে তাদের কাছে ইনভাইট পাঠান, যাতে ১ দিনের মধ্যে কোয়ালিটি উওর পেয়ে যান , এখানে আপনি সর্বোচ্চ ১৫ জনকে ইনভাইট পাটাতে পারবেন । তাই দেখে শুনে যাদের এক্সপেরিয়েন্স বেশি তাদের কাছে ইনবাইট দেন, যাতে আপনার ইনবাইট  বৃথা না যাই।

ফেসবুক নয়, কোয়ারাতে অ্যাক্টিভ হলেই অনলাইনে যে কোন পরিমান ইনকাম করার সুযোগ
এখন যেকোন উত্তর সাবমিট করার সময় মনে রাখবেন যে, আপনার উত্তর যাতে কোয়ালিটি সম্পন্ন হয়। মিনিমাম১০০ থকে ৫০০ শব্দের আর্টিকেল হয় । কারণ আপনি কি জানেন আপনার এই উত্তর যদি সবার চাইতে ভাল হয় , এটা ডাইরেক গুগুল সার্চ এ রেঙ্কিং করবে । উত্তর দেওয়ার সময় কিওয়ার্ড ডেন্সিটি টিক রাখবেন । প্রশ্নের সাথে যাতে উওরের মিল থাকে ঐটা নজরে রাখবেন । সবসময় উত্তরের মূল প্রাণ টেনে নিয়ে আসার চেস্টা করবেন । যাতে পাঠক পড়ে আনন্দ পায়। আপনার উত্তর গুরুত্ত দিয়ে আপভোট দিতে বাধ্য হয় এবং আপনার সম্পর্কে জানতে আপনার প্রোফাইল পরিদর্শন করে ।

এখন আপনি আপনার সেই উত্তর এ, যেখানে আপনার ওয়েবসাইট এর আর্টিকেল এর কন্টেন্ট মিল থাকবে সেখানে এঙ্কর টেক্সট দিয়ে ব্যকলিঙ্ক করতে পারেন মানে ঐ ওয়ার্ড এর ভিতরে লিঙ্ক ঢুকিয়ে দিতে পারেন । দেখিয়েন ডাইরেক কোন লিঙ্ক দিবেন না , কারণ সরাসরি লিঙ্ক দিয়ে দিলে কোরা থেকে ব্যেন হবে সে উত্তর ।

ফেসবুক নয়, কোয়ারাতে অ্যাক্টিভ হলেই অনলাইনে যে কোন পরিমান ইনকাম করার সুযোগ
উপরে দেখুন কিভাবে  উওর ব্যান করে দিয়েছে কোরা । এর কারণ হচ্ছে উত্তর এ কম সংখ্যক ওয়ার্ড এবং ডাইরেক লিংক দিয়ে দিয়েছে তাই ।

যেমনঃ আমি যদি এভাবে–( http://www.quora.com) লিঙ্ক দিয়ে দি তাহলে এটা ব্যান হবে , এটা কোরা পছন্দ করে না ।

যদি এভাবে – কোরা লিখে  টেক্সট এর ভেতর লিঙ্ক ডুকিয়ে দি তাহলে এটা গ্রহনযোগ্য হবে । কিন্তু লিঙ্ক এর সাথে শব্দের মিল থাকতে হবে ।

উপরের সবকিছু নিয়ে আমি প্রেক্টিকেলি দেখিয়ে কোরা ভিডিও টিউটোরিয়াল বানিয়ে দিয়েছি। নিচের লিঙ্ক এ গিয়ে দেখে নিতে পারেন। এখানে আমি কিভাবে মার্কেটিং করবেন সুন্দরভাবে দেখিয়ে দিয়েছি ।

how to turn million traffic from quora for your website or fiverr gig

Quora মার্কেটিং এর উপকারিতাঃ

  1. আপনি আপনার ব্যবসা বাড়াতে পারবেন সহজে এবং সেল ও পাবেন ভাল যদি ভালভাবে মার্কেটিং করতে পারেন ।
  2. হিউস পরিমানে মিলিয়ন মিলিয়িন টার্গেটেড ভিজিটর পাবেন ।
  3. ইন্টারন্যেশনাল মার্কেট এ নিজের বা নিজের বিজনেস এর ব্রান্ডিং করতে পারবেন ।
  4. ফ্রিল্যান্সাররাও ফাইবার সহ যেসব অনলাইন মার্কেটপ্লেইস আছে সে মার্কেট এর লিঙ্ক শেয়ার করে নিজের সেল বাড়াতে পারবেন ।
  5. স্পেশালি বিভিন্ন টপিক নিয়ে ফুল স্টাডি করতে পারবেন এবং নিজে অভিজ্ঞতা অর্জন করবেন ।

ফাইবার এর গিগ ব্যাকলিঙ্ক করে এ ইম্প্রেশন, ভিউ, ক্লিক বাড়াতে পারবেন , তাতে আপনার গিগ রেঙ্কিং থাকবে এবং উত্তর এ কোয়ালিটি থাকলে সেইল ও পেয়ে যেতে পারেন । এককথায় Fiverr গিগ মার্কেটিং করতে পারবেন।

Quora মার্কেটিং এ সতর্কতাঃ

  1. কোন প্রকার স্পামিং করবেন না ।
  2. অযথা উত্তর এ কমেন্ট করে লিঙ্ক ঢুকিয়ে দিবেন না । পারলে উওর এ ভাল কমেন্ট করে আপনার ভ্যালু বাড়িয়ে নিন।
  3. ডাইরেক লিঙ্ক শেয়ার করবেন না ।
  4. প্রশ্নের সাথে উত্তর এর মিল না রেখে উত্তর দিবেন না ।
  5. উত্তর এ প্রচুর পরিমানে ভ্যালু এড করবেন, যাতে উত্তরের কোয়ালিটি থাকে।
  6. উত্তরের সাথে মিল রেখে ছবি এড করতে চেষ্টা করবেন ।
  7. উত্তরের সাথে মিল রেখে ভিডিও ইনভেডেট লিঙ্ক দেয়ার চেষ্টা করতে পারেন ।
  8. উত্তর ১০০ থেকে ৫০০ ওয়ার্ড রেখে দেয়ার চেষ্টা করবেন কারণ এই উত্তর টি শত শত বছর থেকে যাবে এবং এটি থেকে মানুষ শিক্ষা লাভ করবে ।

আচ্ছা আপনি কি এবার আপনার প্রফেশনাল ব্রান্ডিং বা বিজনেস এর প্রসার ঘটানোর জন্য কোরা ব্যবহার করবেন ? এবং এই আর্টিকেল টি পড়ে আপনি কিভাবে উপকৃত হয়েছেন ? দয়া করে আপনি নিচের কমান্ট বক্স এ এই আর্টিকেল সম্পর্কে নিজের চিন্তা ভাবনা আমাদের সাথে শেয়ার করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here